সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন কি

ডিজিটাল মার্কেটিং

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন এমন একটি মাধ্যম যার সাহায্যে আমরা আমাদের প্রয়োজনীয় তথ্য বিশ্বের যেকোনো স্থান থেকে খুঁজে বের করতে পারি। এস ই ও (seo) এর পরিপূর্ণ নাম, সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন।

image

এত বড় একটি প্লাটফর্ম যেখানে কোটি কোটি তথ্যের সন্ধান পাওয়া যায়। অবশ্যই এই সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন এর অনেক কিছু জানার আছে। যে তথ্যগুলো আমাদের নিজেদের কাজে লাগবে চলুন জেনে নেওয়া যাক।

পেজ সূচিপত্রঃ সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন কি

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন কি

সার্চ ইঞ্জিন এমন এক ধরনের পদ্ধতি যার মাধ্যমে ওয়েবসাইটকে সার্চ ইঞ্জিন এর কাছে গুরুত্বপূর্ণ করে তোলা।

সার্চ ইঞ্জিন কি?

গুগোল , ইয়াহু , এইরকম কিছু ওয়েবসাইট আছে যেগুলো আমরা আমাদের প্রয়োজনীয় অনেক তথ্যের নাম লিখলে আমাদের সামনে নিয়ে আসে। সার্চ ইঞ্জিনের কাজ অনেকগুলো তথ্য থেকে নির্দিষ্ট তথ্য সামনে নিয়ে আসা।

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন কয় ভাবে করা হয়

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন দুই ভাবে করা হয়। ১.অফ পেজ seo আর ২.অন পেজ seo

অফ পেজ seo মানে হল নিজের ওয়েবসাইটকে এমন কিছু টেকনিক ব্যবহার করে সার্চ ইঞ্জিনে জন্য অপটিমাইজেশন করা এখানে নিজের ওয়েবসাইটের লিংক নিজের ওয়েবসাইটের ভেতর কাজ করতে হয় না। মানে এই মাধ্যমে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন করার জন্য, আপনার সম্পূর্ণভাবে ওয়েবসাইটের বাইরে গিয়ে কিছু seo টেকনিক ব্যবহার করতে হবে।

ব্যাকলিংক তৈরী করা অফ পেজ seo মূল বিষয় এবং এটি এমন একটি কৌশল যা প্রথম পৃষ্ঠায় রাঙ্কিং এর আকাঙ্ক্ষা সহ যেকোন সাইটের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ । গুগল ইয়াহু সার্চ ইঞ্জিন অ্যালগরিদম একটি সাইটের জন্য কর্তৃপক্ষের উপর একটি শালীন পরিমাণ ওজন রাখে।

আরো পড়ুন: জিমেইল পাসওয়ার্ড কিভাবে দেখবো

অন পেজ seo তে আপনার ওয়েবসাইটেকে সম্পূর্ণভাবে তৈরি করার জন্য যা কিছু প্রয়োজন হয় সবটুকু অন পেজ seo এর মাধ্যমে করানো হয়। ওয়ান পেজ এসইও হল সার্চ ইঞ্জিনে উচ্চতর র‍্যাংক করার জন্য আপনার ওয়েবসাইটকে অপটিমাইজ করা। 

আমরা তো জানলাম seo দুইভাবে করা যায় হয় একটা অফ পেজ seo আর একটা অন পেজ seo এবার জানব এসইও ভিতরে আবার তিনটা ক্যাটাগরি আছে।

১. হোয়াইট হ্যাট seo ২. গ্রে হ্যাট seo  ৩. ব্ল্যাক হ্যাট seo কি

হোয়াইট হ্যাট seo কি?

সঠিক পদ্ধতিতে আমাদের ওয়েবসাইটকে গুগলের কাছে গুরুত্বপূর্ণ করে তোলাকে হোয়াইট হ্যাট seo বলে।

গ্রে হ্যাট seo কি?

সার্চ ইঞ্জিন এর কিছু নিয়ম কানুনের ফাঁক ফোকর আপনি খুঁজে বের করে ব্যবহার করা।

যেমন আপনি শুনতে পেলেন রাজশাহীতে মাশরাফি আসবে মাশরাফি আসার কথা শুনে আপনি গুগলে সার্চ করলে কিন্তু দেখলেন গুগলে সেরকম কোন কথা বাত্রা নাই এই সুযোগটাকে আপনি কাজে লাগিয়ে গ্রে হ্যাট seo করতে পারেন।

আরো পড়ুন: ডিজিটাল মার্কেটিং এ কি কি শেখানো হয়।

ব্ল্যাক হ্যাট seo কি? 

অবৈধ পদ্ধতিতে আমাদের ওয়েবসাইটকে গুগোল এর কাছে গুরুত্বপূর্ণ করে তোলা। এই পদ্ধতি মাধ্যমে আপনার ওয়েবসাইটের অনেক রিক্স থাকে।

seo ফ্রিতে শিখার জন্য মাধ্যম কি

আমরা মূলত প্রথমে শিখবো কিভাবে অফ পেজ seo করতে হয় তারপরে শিখব অন পেজ seo কিভাবে করতে হয়। তারপর শিখব সোশ্যাল মার্কেটিং কিভাবে করতে হয়। যেমন ফেসবুক মার্কেটিং , লিংক বিল্ডিং ,  ব্লগপোস্ট , কিবোর্ড রিসার্চ ইত্যাদি।

seo এটা একটি পোষ্টের মাধ্যমে কিংবা একটি ভিডিও দেখে শিখা সম্ভব না আপনাকে একটু একটু করে অর্জন করে নিতে হবে। আপনি যখন একটা একটা করে শিখতে থাকবেন তখন ক্রমানুসারে আপনি নিজেই ডিসাইড করতে পারবেন।

seo ফ্রিতে শেখার জন্য সেরা মাধ্যম হলো ইউটিউব এবং গুগোল এই দুইটি সাইটে সার্চ করলেই আপনি সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন কি? শিখতে পারবেন।

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন এর কাজ শিখে লাখ টাকা উপার্জন

শুধুমাত্র স্টুডেন্টরাই লিংক বিল্ডিং এর কাজ করে মাসে লাখ লাখ টাকা উপার্জন করছে। বিশ্বাস না হলে আপনারা ফাইবার একাউন্টে গিয়ে চেক করে নিতে পারেন লিংক বিল্ডিং এর কাজ করে কত টাকা আয় করছে।

আরো পড়ুন: ফ্রিল্যান্সিং ডিজিটাল মার্কেটিং কি?

তাই আপনিও যদি আর্থিক সংকট থেকে সচ্ছলতাই ফিরে আসতে চান তাহলে আমি বলব সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন  কি তা সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা অর্জন করে সামনের দিকে এগিয়ে যান ইনশাল্লাহ আপনিও পারবেন। 

লিংক বিল্ডিং সম্পর্কে ছোট্ট একটি ধারণা

ধরুন আপনার একটি ওয়েবসাইট আছে যেই য়েবসাইটের মাধ্যমে আপনি বিভিন্ন প্রোডাক্ট বিক্রি করেন যেমনঃ দারাজ, ফুড পান্ডা এদের মত, কিন্তু আপনার তো সাইড এত জনপ্রিয় না। এখন আপনার ওয়েবসাইটকে জনপ্রিয় করতে হলে লিংক বিল্ডিং এর কাজ করে আপনার ওয়েবসাইটকে ছড়িয়ে দিতে হবে যেমন গ্রামে বা শহরে পোস্টার লাগিয়ে কোন জিনিস প্রচার করি ঠিক তেমনি পোস্টারের কাজ করে লিঙ্ক বিল্ডিং।

ধরুন ফেসবুক , ইউটিউব নামের দুইটি শহর আছে এখানে অনেক মানুষের সমাগম। এখন আপনার কাজ হল তাদের ওয়েবসাইটে কমেন্ট সেকশনে গিয়ে আপনি আপনার ওয়েবসাইটের প্রচার করবেন। কোন একটা ওয়েবসাইটে ভালো শার্ট বিক্রি হয় সেখানে গিয়ে তাদের কমেন্ট সেকশনে আপনি বললেন আপনি যদি ভালো শার্ট কম দামে পছন্দের শার্ট পেতে চায় তাহলে এই লিংকে প্রবেশ করে আপনার পছন্দের শার্ট বেছে নিতে পারেন। এটাই লিংক বিল্ডিং বা সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন এর কাজ।

শেষ কথা

আমাদের দেশে দিন দিন বেকারত্বের সংখ্যা বাড়ছে অনেকেই আর্থিক সঙ্কটে ভুগছে তাই আপনাদের কাছে আমার রিকোয়েস্ট আপনারা অবসর সময় টা কাজে লাগিয়ে লিংক বিল্ডিং এর মাধ্যমে ফ্রিল্যান্সিং যাত্রা শুরু করুন খুব সহজেই অল্প পরিশ্রমে দারিদ্রতা থেকে বেরিয়ে আসতে পারবেন।

ধন্যবাদ-Thanks

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

আর আইটি ফার্মের নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url