আর্টিকেল রাইটার - ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য আর্টিকেল রাইটিং

আপনারা জানেন আর্টিকেল রাইটিং এর ৪ টি ক্যাটাগরি রয়েছে। এখানে দুই ক্যাটাগরির ব্যক্তিদেরকে আর্টিকেল লেখার নিয়ম কানুন গুলো উপস্থাপন করা হয়েছে। এবং পয়েন্ট আকারে তথ্যগুলো উপস্থাপন করা হয়েছে। পয়েন্ট গুলো ভালোভাবে জেনে নিন। কাজ বুঝিয়ে দেওয়ার আগে আপনাকে পয়েন্টগুলো সম্পর্কে জানতে হবে এবং আমাদের কাছে প্রশ্ন করতে হবে আমি এটা বুঝিনি।

পয়েন্ট নাম্বার ১

  1. জেনারেল রাইটার টিমে (আর্টিকেল রাইটার)
  2. এবং ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য আর্টিকেল রাইটিং

দুই ক্যাটাগরির ব্যক্তির শুধু বেতন এবং সুযোগ সুবিধা আলাদা। আর্টিকেল লেখার জন্য ভিন্ন কোন নিয়ম নাই একই নিয়মে আর্টিকেল লিখতে হবে।

টাকা দিয়ে চাকরি নিশ্চিত করার পর কয়েকটি কাজ প্রথমে করা লাগবে দ্বিতীয়বার এই কাজগুলো করা লাগবে না।

পয়েন্ট নাম্বার ২

  • ব্লগিং একাউন্ট তৈরি
  • google docs file

এই দুটি মাধ্যমে প্রতিদিন আর আই টি ফার্ম এর সাথে তথ্য আদান-প্রদান করা হবে।

আপনারা যে আর্টিকেলগুলো লিখবেন সেগুলো ব্লগিং একাউন্ট থেকে নেওয়া হবে। এবং আর্টিকেল লেখার জন্য SEO টাইটেল google docs file এর মাধ্যমে আপনাদেরকে প্রদান করা হবে। আপনি যে টাইটেল নিয়ে কাজ করছেন সেই টাইটেলের পাশে তিনটি *** চিহ্ন দিয়ে আপনার নাম লিখে দিবেন।

আর আইটি ফার্মের সরবরাহকৃত তথ্যর হস্তান্তরযোগ্য না। আপনারা ভুলেও এই তথ্যগুলো অন্য কারো সাথে শেয়ার করবেন না। অন্যের কাছে তথ্য শেয়ার করা একটি অপরাধ এবং এ তথ্যগুলো অন্য কারো সাথে শেয়ার করলে আপনার চাকরি নাও থাকতে পারে।

পয়েন্ট নাম্বার ৩

প্রথমেই আপনাকে যে বিষয়ে আর্টিকেল লিখছেন সে বিষয় সম্পর্কে গুগল এবং ইউটিউব থেকে ক্লিয়ার/স্বচ্ছ ধারণা নিয়ে নিবেন।

আর্টিকেল লেখার শুরুতে ৩-৫ লাইনের মধ্যে স্বচ্ছ ধারণা প্রদান করতে হবে। এবং একটি সূচিপত্র তৈরি করতে হবে। নিচে একটি ছবি দেওয়া হল ছবিটির দিকে লক্ষ্য করুন।

image

আপনাদেরকে কালার ডিজাইন কোন কিছুই করা লাগবে না। আপনি যে বিষয়ে আর্টিকেল লিখবেন সেই বিষয়টি সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা প্রদানের জন্য যে সকল বিষয় লিখা দরকার সে সকল বিষয়গুলোর একটি সূচিপত্র তৈরি করুন।

পয়েন্ট নাম্বার ৪

সূচিপত্র অনুযায়ী হেডিং গুলো লিখুন এবং ধারাবাহিকভাবে পয়েন্ট অনুযায়ী লিখতে থাকুন। লিখার সময় নতুন কোন পয়েন্ট মনে পড়লে বা লেখার প্রয়োজন হলে সেখানে আরও একটি হেডিং যোগ করুন এবং সূচিপত্র তে হেডিং পয়েন্ট টি লিখে নিন। হেডিং লেখার জন্য নিচে একটি ছবি দেওয়া হলো।

image

এভাবে আপনারা একটি কমপ্লিট আর্টিকেল লিখবেন। আমাদের ওয়েবসাইটে বিভিন্ন আর্টিকেল রয়েছে সেগুলো দেখবেন এবং লিখার সময় অতিরিক্ত স্পেস ইমোজি অপ্রয়োজনীয় কথা এড়িয়ে যাবেন আপনার টার্গেট থাকবে সব সময় ফোকাস কিওয়ার্ড এবং স্বচ্ছ ভাবে পরিপূর্ণ কনসেপ্ট ক্লিয়ার করার।

পয়েন্ট নাম্বার ৫

আর আইটি ফার্মে আর্টিকেল লেখার সময় কিছু নিয়ম মেনে আর্টিকেল লিখতে হবে। অবশ্যই অবশ্যই এই কাজগুলো করা যাবে না। পয়েন্টগুলো নিচে আপনাদেরকে বলে দেওয়া হয়েছে। আপনারা এই কাজগুলো যদি করেন তাহলে আর্টিকেল লেখা আর না লেখা দুটোই সমান।

  • কপি পেস্ট করা যাবে না
  • AI বা রোবট দিয়ে আর্টিকেল লিখা যাবে না
  • অন্য কোন জায়গা থেকে লেখা কপি করে পেস্ট করা যাবে না
  • রাষ্ট্রীয় রাজনৈতিক কিংবা কোন ব্যক্তিকে ছোট করে লিখা যাবে না
  • এডাল্ট আর্টিকেল বা যৌন উত্তেজনামূলক আর্টিকেল লেখা যাবে না
  • এক হাজার শব্দ পরিপূর্ণ করার জন্য হাবিজাবি/আজেবাজে লিখা যাবে না

আশা করি আপনাদের বুঝতে পেরেছেন। আপনারা চেষ্টা করবেন সহজ ভাষায় অর্থ প্রকাশ করার এবং আপনি যে বিষয় আর্টিকেল লিখছেন সেই বিষয়টি আর্টিকেলের মাধ্যমে পরিপূর্ণ ভাবে বোঝানো।

পয়েন্ট নাম্বার ৬

অল্প সময়ে একটি আর্টিকেল লেখার জন্য কয়েকটি নিয়ম অনুযায়ী লিখলে সহজে একটি আর্টিকেল লিখতে পারবেন।

  1. টাইটেল অনুযায়ী যেগুলো জানার প্রয়োজন google এবং youtube এ সার্চ করে জেনে নিন।
  2. সূচিপত্র এবং হেডিং তৈরি করে নিন।
  3. প্রতিটা বিষয় গুগল এবং ইউটিউব থেকে সার্চ করে দেখুন আর লিখতে থাকুন।
  4. আপনার আর্টিকেলটি SEO ফ্রেন্ডলি করার জন্য টাইটেল এবং এমন সব শব্দ মিলিয়ে লিখুন যেগুলো লিখে মানুষ সার্চ করে, এটা একটি গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট অবশ্যই অবশ্যই আর্টিকেল লেখার সময় মাথায় রাখবেন। SEO এবং সার্চ হয় এরকম কি-ওয়ার্ড।

উদাহরণ, নামাজ শিক্ষা বই, নামাজ শিক্ষা সূরা, নামাজ ভঙ্গের কারণ ১৯টি, নামাজ সম্পর্কে কুরআনের আয়াত, নামাজ না পড়ার শাস্তি, ইত্যাদি। এখন আপনি আর্টিকেল লিখছেন { নামাজ ভঙ্গের কারণ ১৯টি } এই শব্দটি সম্পূর্ণ আর্টিকেলের মাঝে মাঝে থাকতে হবে এবং আরো যে বিষয়গুলো আছে নামাজ শিক্ষা বই, নামাজ সম্পর্কে কোরআনের আয়াত, নামাজ না পড়ার শাস্তি, এরকম পয়েন্টগুলো আপনার আর্টিকেলের ভিতর রাখতে হবে, আশা করি বুঝতে পেরেছেন।

আপনার আর্টিকেল লেখা শুরু করুন আস্তে আস্তে আরো অনেক কিছু জানবেন, জানার চেষ্টা করবেন। এবং  আপনার  যেন SEO ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল লিখে সর্বোচ্চ টাকা নিতে পারেন। যে যত ভালো SEO ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল লিখতে পারবেন তাকে তত বেশি টাকা দেওয়া হবে।

ধন্যবাদ-Thanks

এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

আর আইটি ফার্মের নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url