ওশেনিয়া মহাদেশের দেশগুলোর নাম

news - খবর

প্রশান্ত মহাসাগরের সকল দ্বীপকে একত্রে ওশেনিয়া বলে। এবং অনেক বিসিএস স্টুডেন্টদের ওশেনিয়া মহাদেশ বিষয় পরীক্ষায় প্রশ্ন আসে। ওশেনিয়া মহাদেশের দেশগুলো সম্পর্কে যদি ভালো ভাবে জেনে থাকা যায় তাহলে অনেক প্রশ্ন সহজ হয়ে যায়।

image

তো আসুন এই কনটেনটিতে ওশেনিয়ার বিষয়ে আমরা জানবো যেমন: আয়তন সহ মুদ্রা সম্পূর্ণ জানবো এবং ওশেনিয়া মহাদেশের দেশগুলোর নাম জানব এবং কয়টি দেশ আছে সেটাও জানবো। এছাড়াও এই কনটেন্টটিতে আমরা অজানা কিছু তথ্য জানবো তো আসুন শুরু করা যাক।

সূচিপত্র:ওশেনিয়া মহাদেশের দেশগুলোর নাম

ওশেনিয়া মহাদেশের দেশগুলোর নাম

ওশেনিয়া মহাদেশে মোট ১৫ টি দেশ রয়েছে।

দেশের নাম আয়তন রাজধানীর নাম দেশের মুদ্রা
অস্ট্রেলিয়া ৭৭,৭০,০০০ বর্গ কি.মি. ক্যানবেরা ডলার
ফিজি ১৮,৩০০ বর্গ কি.মি. সুভা ডলার
নিউজিল্যান্ড ২৬৭,৭১০ বর্গ কি.মি. ওয়েলিংটন ডলার
টোঙ্গো ৭৫০ বর্গ কি.মি. নুকুয়ালোফা
ফ্রাঙ্ক
মাইক্রোনেশিয়া ৭০১.৯ বর্গ কি.মি. পালিকির মার্কিন ডলার
পাপুয়া নিউগিনি ৪৬২.৮৪০ বর্গ কি.মি. পোর্ট মোসাবি কিনা
পালাউ ৪৫৮.৪ বর্গ কি.মি. নেগারুলমার্ড মার্কিন ডলার
পশ্চিম সামোয়া ২.৮৪২ বর্গ কি.মি. আপিয়া তালা
নাউরু প্রজাতন্ত্র ২১ বর্গ কি.মি. ইয়েরেন ডলার
মার্শাল দ্বীপপুঞ্জ ১৮১ বর্গ কি.মি. মাজুরো মার্কিন ডলার
কিরিবাতি ৮১১.২ বর্গ কি.মি. তারাওয়া ডলার
টরুভ্যালু ২৬ বর্গ কি.মি. ফুনাফুটি ডলার
সলোমন দ্বীপপুঞ্জ ২৮.৮৯৬ বর্গ কি.মি. হোনিয়ারা ডলার
ফ্রেঞ্চ পলিনেশিয়া ৩.৫২১ বর্গ কি.মি. পাপেট্রি সিএফএ ফাঙ্ক
ভানুয়াতু ১২.১৮৯ বর্গ কি.মি. ভিলা  ভাটু

আরো পড়ুন: নাসা নিউজ - নাসা কোথায় অবস্থিত ইত্যাদি।

ওশেনিয়া মহাদেশ সম্পর্কে অজানা কিছু তথ্য

ওশেনিয়া মহাদেশ পৃথিবীর স্থলভাগের ক্ষুদ্রতম একটি মহাদেশ। যা অস্ট্রেলিয়া মহাদেশ নামেও পরিচিত। এটি পৃথিবীর দক্ষিণ গোলাতে অবস্থিত। এবং মকর প্রান্তের রেখা এই মহাদেশের প্রায় মধ্যভাগ দিয়ে অতিক্রম করেছে। মূলত প্রশান্ত মহাসাগরের মধ্যভাগ ও দক্ষিণাংশের দীপ সমূহ নিয়ে এই মহাদেশ গঠিত। ওশেনিয়া মহাদেশের বৃহত্তম দেশ হলো অস্ট্রেলিয়া।

যার নাম অনুসারে এই মহাদেশটি অস্ট্রেলিয়া নামেও পরিচিত। ওশেনিয়া মহাদেশের (আয়তন ৮৬ লক্ষ বর্গ কিলোমিটার) যা পৃথিবীর শতকরা আয়তনের ৫.৭% শতাংশ। এবং ওশেনিয়া মহাদেশের জনসংখ্যা ৪ কোটি। যা পৃথিবীর জনসংখ্যার ০.৫৫% শতাংশ। এই মহাদেশে প্রতি বর্গ কিলোমিটারে ৪ জন বসবাস করে।

চলুন কিছু ওশেনিয়া মহাদেশের অজানা কিছু তথ্য জেনে আসি:👇

১। স্থল ভাগের দিক থেকে ওশেনিয়া পৃথিবীর ক্ষুদ্রতম মহাদেশ হলেও ওশেনিয়া এত বিশাল যে ভূগোল  বিদ্রা এটিকে চারটি প্রধান ছোট ছোট অংশে বিভক্ত হয়েছে। এগুলো হলো: অস্ট্রেলিয়া, মেলেনেসিয়া মাইক্রোনেশিয়া, এবং পলিনেশিয়া।

২। ওশেনিয়া মহাদেশের বেশিরভাগ অংশই প্রশান্ত মহাসাগরের নিচে মাত্র ৮ শতাংশ মাটির উপরে যার সবচেয়ে বড় অংশটি হলো অস্ট্রেলিয়া।

৩। ওশেনিয়া মহাদেশ অত্যন্ত জনবিরল একটি অঞ্চল যেখানে মানুষের চেয়ে ভেড়ার সংখ্যা ৩ গুণ। এবং অস্ট্রেলিয়ায় মানুষের চেয়ে ক্যাঙ্গারুর সংখ্যা দ্বিগুণ।

৪। ইউরোপের নাবিকরা ১৬০০ শতকে অঞ্চলটি আবিষ্কার করলেও পলিন এশিয়ানরা প্রথম এখানে বসবাস স্থাপন করেছিল। তাই এই মহাদেশের অধিকাংশ মানুষের পূর্বপুরুষ হলো ইউরোপিয়ানরা।

৫। ডাচ অভিযাত্রী এবেল তাসমান ১৬৪২ সালে প্রথম নিউজিল্যান্ডে পৌঁছিয়ে ছিলেন। যেখানে সে সময় মাউরি জনগণের বসবাস ছিল।

৬। ওশেনিয়া মহাদেশে অবস্থিত নাউরূপ পৃথিবীর একমাত্র দেশ যাদের কোন সরকারি রাজধানী নেই। তবে এটি পৃথিবীর অন্যতম ছোট দেশের মধ্যে একটি। 

আরো পড়ুন: পড়ালেখা কে আবিষ্কার করেছে?

৭। ওশেনিয়া মহাদেশে অবস্থিত গ্রেট ব্যারিয়ার রিফ হলো বিশ্বের বৃহত্তম প্রবল প্রাচীর ব্যবস্থা।যা অস্ট্রেলিয়ার কুইসল্যান্ডের উপকূলে অবস্থিত।২৩০০ কিলোমিটার জোরে বিসৃত গ্রেট ব্যারিয়ার রিফ চীনের গ্রেট ওয়াল থেকেও বড় এবং পৃথিবীর একমাত্র জিনিস যা মহাকাশ থেকে দেখা যায়।

৮। ওশেনিয়া মহাদেশ পৃথিবীর একমাত্র স্থান যেখানে মনোট্রেম নামক এক ধরনের স্তন্যপায়ী প্রাণী পাওয়া যায় যারা ডিম দেয়। এখন পর্যন্ত মনোট্রেমের পাঁচটি প্রজাতি পাওয়া গিয়েছে এবং সবগুলোই অস্ট্রেলিয়া ও পাপুয়া নিউগিনিতে বসবাস করে।

৯। ব্রিটিশ উপনিবেশের সময় ওশেনিয়া মহাদেশের দ্বীপগুলোকে ব্রিটেন সরকার তাদের কারাগারের উপনিবেশ হিসেবে ব্যবহার করত। যেখানে তারা ব্রিটিশ সরকারের বিরোধী অপরাধী এবং বহিষ্কৃতদের শাস্তি স্বরূপ পাঠাতো

ওশেনিয়া মহাদেশের কিছু প্রশ্ন উত্তর

ওশেনিয়া মহাদেশ সম্পর্কে কিছু প্রশ্ন উত্তর দেওয়া হল যা বিসিএস এর জন্য একটু হলেও সুবিধা হবে ইনশাআল্লাহ। আমরা জানি বিসিএস পরীক্ষায় ওশেনিয়া মহাদেশ সম্পর্কে কিছু প্রশ্ন করা হয়। তাই আমরা যদি প্রশ্ন-উত্তরগুলো পড়ে থাকি তাহলে আশা করি সুবিধা হবে। নিম্নে প্রশ্ন উত্তর গুলো দেওয়া হল:👇

প্রশ্ন উত্তর
ওশেনিয়া মহাদেশে কত শতাংশ খ্রিস্টান বাস করে?
৭৪% শতাংশ খ্রিস্টান বাস করে।
ওশেনিয়া মহাদেশে কত শতাংশ নাস্তিক বাস করে? ২৩% শতাংশ নাস্তিক বাস করে।
ওশেনিয়া মহাদেশে কত শতাংশ ইসলাম ধর্ম বাস করে?
২% শতাংশ ইসলাম ধর্মের মানুষ বাস করে।
অন্যান্য ধর্মের মানুষ ওশেনিয়া মহাদেশে কত শতাংশ বাস করে?
১% শতাংশ অন্যান্য ধর্মের মানুষ বাস করে।
ওশেনিয়া মহাদেশের সবথেকে বড় দেশ কোনটি?
অস্ট্রেলিয়া।
ওশেনিয়া মহাদেশের সবথেকে ছোট দেশ কোনটি? নাউরু।
ওশেনিয়া মহাদেশের উচ্চতম পর্বত কোনটি? ও কত মিটার? দেশটির উচ্চতম পর্বত পঞ্চাক জায়া। পর্বতটির সমুদ্র পৃষ্ঠ থেকে এর উচ্চতা ৪৮৮৪ মিটার/১৬০২৪ ফুট
ওশেনিয়া মহাদেশের নিম্নতম স্থান কোনটি? ও এর নিম্নতা? দেশটির নিম্নতম স্থান আয়ার হ্রদ। আয়ার হ্রদ এর নিম্নতা -১৫ মিটার/-৪৯ ফুট।
ওশেনিয়া মহাদেশের সবথেকে ধনী দেশ কোনটি? অস্ট্রেলিয়া।
ওশেনিয়া মহাদেশের সবথেকে গরীব দেশ কোনটি? কিরিবাস।
ওশেনিয়া মহাদেশে কয়টি ভাষা প্রচলিত রয়েছে? ৪৫০ টি ভাষা প্রচলিত রয়েছে।
ওশেনিয়া মহাদেশে সবথেকে কোন ভাষার প্রচলন বেশি? ইংরেজি।
ওশেনিয়া মহাদেশের সবথেকে কোন নদী বড়? মারি নদী।
মারি নদীর দৈর্ঘ্য কত? ২,৫৮৯ কিলোমিটার।
ওশেনিয়া মহাদেশের বড় সাগর কোনটি? কোরাল সাগর।
ওশেনিয়া মহাদেশে কয়টি স্বাধীন দেশ রয়েছে? ওশেনিয়া মহাদেশে ১৪ টি স্বাধীন দেশ রয়েছে।
ওশেনিয়া মহাদেশের কোন দেশের মুদ্রা কে বেশি দামি মুদ্রা হিসেবে গণ্য করা হয়?
অস্ট্রেলিয়ান ডলারকে।

উপসংহার

আশা করি যারা বিসিএস পরীক্ষার্থী এবং যারা সরকারি বেসরকারি পরীক্ষা দিবেন। ইনশাআল্লাহ আশা করি তাদের জন্য এই কনটেন্টটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি ভূমিকা পালন করবে ইনশাআল্লাহ। কারণ এই ওশেনিয়া মহাদেশটির বিষয় অনেক সময় অনেক প্রশ্ন করে থাকে।

ধন্যবাদ-Thanks

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

আর আইটি ফার্মের নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url