পেট ব্যাথা কমানোর ঔষধ

রোগ ও সমস্যা

আমাদের দৈনন্দিন জীবনে যে সমস্ত স্বাস্থ্য সমস্যায় আমরা ভুগে থাকি তার মধ্যে পেট ব্যথা অন্যতম। এমন ব্যক্তির সংখ্যা খুবই কম যে জীবনের কোন না কোন সময় পেটের ব্যথায় ভোগেনি। আপনারা এই কনটেন্টিতে a to z পেট ব্যাথা কমানোর ঔষধ সহ ডাক্তারি পরামর্শ এবং কোরআন হাদিস থেকে জানতে পারবেন ইনশাআল্লাহ।

image
পেট ব্যাথা কমানোর ঔষধ - stomach pain

যারা পেট ব্যথা সমস্যায় ভুগছেন তাদের জন্য সুখবর। এ কনটেন্টে সকলেরই পড়া উচিত কেননা এ তথ্যগুলো অনেকেই জানে না। সকলেরই জানার প্রয়োজন, আশা করি সম্পূর্ণ কনটেন্টটি জেনে উপকৃত হবে।

সূচিপত্র: সূচিপত্র: পেট ব্যাথা কমানোর ঔষধ এবং পেট ব্যথা সম্পৃক্ত অন্যান্য বিষয়

পেট ব্যাথা কি কারনে হয় - পেট ব্যাথা করে কেন

আমাদের পেট ব্যাথা কি কারনে হয় / পেট ব্যাথা করে কেন না, জেনেই আপনারা বিভিন্ন রকমের পেট ব্যাথা কমানোর ঔষধ খেয়ে থাকেন। এটা বিপদজনক।

কারণ পেটে ব্যথা কোন রোগ নয়। পেটে ব্যথা রোগের উপসর্গ এবং পেটে ব্যথার বিভিন্ন কারণ রয়েছে। এ সকল কারণ সনাক্তকরণ ব্যতিরেকে ঔষধ খেলে তাতে উপকারের পরিবর্তে অপকার হবার সম্ভাবনা বেশি। আশা করি বিষয়টা বুঝতে পেরেছেন।

পেট ব্যাথা কি কারনে হয়, পেট ব্যাথা করে কেন, পেট ব্যথার কারণ কি? এ সকল প্রশ্নের উত্তর নিচে দেওয়া হল। (আগে পেট ব্যথার কারণগুলি জেনে নেই এরপর ঔষধ বা ট্যাবলেট নিয়ে আলোচনা থাকে)

পেটে ব্যথার কারণ - পেট ব্যাথা কি কারনে হয়👇

  1. পেপটিক আলসার (পাকিস্থলী এবং ক্ষুদ্রাতন্ত্রের ক্ষত)
  2. পিত্তথলির প্রদাহ (কলেসিস্টাইটিস)
  3. লিভারের রোগ সমূহ-
    1. * হেপাটাইটিস (লিভার ইনফ্লামেশন)
    2. * লিভার ক্যান্সার
  4. খাদ্য বিষক্রিয়া (ফুড পয়োজনিং)
  5. অগ্নাশয়ের রোগ সমূহ
    1. * অগ্নাশয়ের প্রদাহ
    2. * অগ্নাশয়ের ক্যান্সার
  6. মূত্রনালীর প্রদাহ
  7. এ্যাপেনডিসাইটিস
  8. অন্ত্রনালীর পথ রুদ্ধ হওয়া
  9. অন্ত্রনালীর ছিদ্র (পারফোরেশন)
  10. কিডনিতে পাথর
  11. জরায়ুর দুই পাশ্বের নালীর এবং ওভারীর প্রদাহ
  12. একটোপিক প্রেগন্যান্সি
  13. ওভারিয়ান সিস্ট ফেটে গেলে

এছাড়াও অতিরিক্ত খাদ্য গ্রহণ করলে অনেক সময় পেটে ব্যথা হয়।

আরো পড়ুন: এইডস এর লক্ষণ (বিস্তারিত)

এই কারণগুলোর জন্য পেটে ব্যথা হয়। এখন প্রশ্ন? পেট ব্যাথা কমানোর ঔষধ কোনটা খাবেন। নিশ্চয়ই রোগ নির্ণয় করার পর ঔষধ খাবেন। তাহলেই আপনার পেট ব্যথা কমে যাবে ইনশাআল্লাহ। (ব্যাপারটা সহজ হয়ে গেল তাই না) প্রথমে রোগ নির্ণয় এরপর ঔষধ প্রয়োগ।

আপনারা অনেকেই ফার্মেসি থেকে পেট ব্যাথা কমানোর ঔষধ হিসেবে বিভিন্ন ওষুধ আপনারা খেয়ে থাকেন, ঔষধগুলো খাওয়ার আগে রোগ নির্ণয় খুবই জরুরী। তাহলে এখন রোগ নির্ণয় জন্য পেটে ব্যথা কমানোর ওষুধ খাওয়ার আগে রোগের বৈশিষ্ট্য গুলো জানা দরকার।

এতে আপনি সহজেই পেটে ব্যথা কমাতে পারবেন, হয়রানি হতে হবে না এবং খুব সহজেই পেট ব্যথার জটিলতা জনিত সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন ইনশাআল্লাহ।

পেট ব্যাথা কমানোর ঔষধ এর জন্য রোগের বৈশিষ্ট্য নির্ণয়

পেট ব্যাথা কমানোর ঔষধ এর জন্য রোগের বৈশিষ্ট্য নির্ণয় নং ১

পেপটিক আলসার (পাকিস্থলী এবং ক্ষুদ্রাতন্ত্রের ক্ষত): পেপটিক আলসারের ব্যথা প্রকার ভেদ খালি এবং ভরা পেট উভয় অবস্থাতেই হতে পারে। এ রোগ হলে পেটের উপরের অংশ মাঝামাঝি জায়গায় জ্বালাপোড়া করে।

পেট ব্যাথা কমানোর ঔষধ এর জন্য রোগের বৈশিষ্ট্য নির্ণয় নং ২

পিত্তথলির প্রদাহ (কলেসিস্টাইটিস): সাধারণত পিত্তথলিতে পাথর জমা হয়ে পিত্তথলির প্রদাহের সৃষ্টি হয়। এ রোগ সাধারণত মোটা, মেদ বহুল এবং ৪০ বছরের বেশি বয়সের মহিলাদের বেশি হয়ে থাকে।

রোগীর পেটের উপরের অংশে ডান দিকে প্রচন্ড ব্যথা অনুভব করে যা পরবর্তীতে কাঁধে ছড়িয়ে পড়তে পারে। একই সাথে প্রচন্ড বমিও হয়।

পেট ব্যাথা কমানোর ঔষধ এর জন্য রোগের বৈশিষ্ট্য নির্ণয় নং ৩

খাদ্য বিষক্রিয়া  (ফুড পয়োজনিং): আমাদের দেশে পেটে ব্যথার অন্যতম কারণ খাদ্য বিষক্রিয়া থেকে। সাধারণত মানসম্মত খাবার না হওয়া, পচাবাঁশি এবং অপরিষ্কার জীবাণুযুক্ত খাবার খাওয়ায় (ফুড পয়োজনিং) সমস্যার উদ্ভব হয়।

পেটে মোচড় দিয়ে ওঠে এবং তীব্র ব্যথা করে, সেই সাথে জ্বর, পাতলা পায়খানা এ সকল সমস্যা গুলো সৃষ্টি হয়। এই রোগে একই সাথে অনেক আক্রান্ত হতে পারে।

পেট ব্যাথা কমানোর ঔষধ এর জন্য রোগের বৈশিষ্ট্য নির্ণয় নং ৪

আগ্নাশয়ের প্রদাহ (পেনক্রিয়াটাইটিস): এ রোগের অন্যতম কারণ বিলীয়ারী নালিকাতে পাথর হওয়া এবং অত্যাধিক অ্যালকোহল পান করা। পেটের উপরের অংশে মাঝামাঝি জায়গা প্রচন্ড ব্যথা অনুভব হয় যা পেটের দুই পাশে এবং তলপেট ব্যথা করে। এছাড়া রোগীর প্রস্রাবে জ্বালাপোড়া করে এবং কাঁপিয়ে কাঁপিয়ে জ্বর আসে।

পেট ব্যাথা কমানোর ঔষধ এর জন্য রোগের বৈশিষ্ট্য নির্ণয় নং ৫

মূত্রনালীর প্রদাহ:  এই রোগে সাধারণত মহিলারা বেশি আক্রান্ত হয়ে থাকেন। এই রোগের আক্রান্ত রোগীর পিঠে পাজরের নিচে দু'পার্শ্বে এবং তলপেটে ব্যথা করে। এছাড়া রোগীর প্রস্রাব জ্বালাপোড়া করে এবং কাঁপিয়ে কাঁপিয়ে জ্বর আসে।

আরো পড়ুন: মাথা ব্যাথা কোন রোগের লক্ষণ

পেট ব্যাথা কমানোর ঔষধ এর জন্য রোগের বৈশিষ্ট্য নির্ণয় নং ৬

অ্যাপেন্ডিসাইটিস: অ্যাপেন্ডিসাইটিস হল বৃহদান্তের অ্যাপেনডিক্স নামক অঙ্গের প্রদাহ। সাধারণত এই রোগর আক্রান্ত রোগের নাভির চারিপাশে ব্যাথা শুরু হয় এবং পরবর্তীতে তলপেটের ডান পাশে প্রচন্ড ব্যথা অনুভব হয়।

পেট ব্যাথা কমানোর ঔষধ এর জন্য রোগের বৈশিষ্ট্য নির্ণয় নং ৭

অন্ত্রনালির পর রুদ্ধ হওয়া: কোন কারণে অন্তনালীর পথ বন্ধ হয়ে গেলে পেটে হঠাৎ করে বেশি প্রচন্ড ব্যথা অনুভব করে। এই ব্যথা বার বার হয়। রোগীর প্রচন্ড বমি হয় এবং পেট ফুলে যায়। এক পর্যায়ে পায়খানা বন্ধ হয়ে যায়।

পেট ব্যাথা কমানোর ঔষধ এর জন্য রোগের বৈশিষ্ট্য নির্ণয় নং ৮

অন্তনালীর ছিদ্র (পারফোরেশন): কোন কারণে (যেমন: পেপটিস আলসার) অন্তনালী ছিদ্র হয়ে গেলে পেটের উপর অংশে হঠাৎ করে প্রচন্ড ব্যথা সৃষ্টি হয় এবং পেট ফুলে শক্ত বোর্ডের মত হয়ে যায়।

পেট ব্যাথা কমানোর ঔষধ এর জন্য রোগের বৈশিষ্ট্য নির্ণয় নং ৯

কিডনিতে পাথর: কিডনিতে পাথর হলে পিঠের কিনারায় পাঁজরের নিচে প্রচন্ড ব্যথা হয় এবং এই ব্যথা পেটের সামনে দিয়ে নিচের দিকে প্রস্রাবের রাস্তার দিকে চলে যায়।

পেট ব্যাথা কমানোর ঔষধ এর জন্য রোগের বৈশিষ্ট্য নির্ণয় নং ১০

জরায়ুর দুই পাশে নালী এবং ওভারীর প্রদাহ (সালপিনগোউফোরাইটিস): এই রোগে আক্রান্ত মহিলাদের তলপেটে অথবা তলপেটের দুই পাশে প্রচন্ড ব্যথার সৃষ্টি হয়। রোগীর প্রচন্ড জ্বর এবং প্রসব করার সময় যন্ত্রণা হয়।

পেট ব্যাথা কমানোর ঔষধ এর জন্য রোগের বৈশিষ্ট্য নির্ণয় নং ১১

ওভারিয়ান সিস্ট ফেটে গেলেন: ওভারিয়ান সিস্ট ফেটে গেলেন রোগীর পেটে প্রচন্ড ব্যথা হয়।

আলহামদুলিল্লাহ, এই পয়েন্টগুলো জানার পর পেটে ব্যথার কারণ, পেট ব্যাথা করে কেন, পেট ব্যাথা কি কারনে হয়, এই সমস্ত কিছু প্রশ্নের উত্তর আপনার কাছে পরিষ্কার বলে আমি মনে করি।

এখন আপনাকে পেট ব্যাথার ট্যাবলেট এর নাম বা পেট ব্যাথা কমানোর ঔষধ এর নাম বলা কঠিন, কেননা আপনার কি হয়েছে সেটা নির্ণয় করতে হবে, তারপরে পেট ব্যাথা কমানোর ঔষধ গ্রহণ করতে হবে।👇 এর আগে পেট ব্যথার জটিলতা সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

পেট ব্যথার জটিলতা

পেট ব্যথা বিভিন্ন কারণগুলো সঠিক সময় চিকিৎসা না করলে জটিলতা দেখা দিতে পারে। যেমন: পেপটিক আলসার থেকে পাকিস্তানি ফুটো হয়ে যেতে পারে, পাকিস্তানে থেকে খাদ্য ক্ষুদ্রত্নে যাবার সরু হয়ে খাদ্য চলাচলে বিঘ্ন ঘটতে পারে।

আরো পড়ুন: চোখ ওঠার ড্রপ - চোখ উঠলে করণীয় কি?

আবার অ্যাপেন্ডিসাইটিস হলে সময় মতো অপারেশন করার ব্যবস্থা না করলে অ্যাপেন্ডিক্স এ পুজ তৈরি হতে পারে এবং তা সারা পেটে ছড়িয়ে পড়তে পারে। এসব জটিলতা থেকে রোগীর মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়তে পারে।

পেট ব্যাথা কমানোর উপায় - পেটে ব্যথা হলে করণীয়

আমরা নিজেরা সচেতন হলে পেট ব্যথার অনেক কারণ থেকে মুক্ত থাকা সম্ভব। যেমন: নিয়মিত পরিমাণমতো খাবার খাওয়া, পর্যাপ্ত বিশুদ্ধ পানি পান করা, পচা দূষিত খাবার খাওয়া থেকে বিরত থাকা ইত্যাদি।

গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হচ্ছে চিকিৎসকের পরামর্শ ব্যতীত ঔষধ খাওয়া ঠিক নয়। চিকিৎসক পেটে ব্যথার সঠিক কারণ সনাক্ত করে যে ব্যবস্থাপনা দেয় সেই অনুযায়ী চললে সুস্থ জীবন যাপন করা সম্ভব।

এবং আপনি পেটে ব্যথার বৈশিষ্ট্য গুলো সঠিকভাবে সনাক্ত করতে পারলে চিকিৎসা করতে অনেকটাই সহজ হবে এবং ছোটখাটো বিষয়গুলোর জন্য ফার্মেসি থেকে ওষুধ নিয়ে খেতে পারেন। কিন্তু অবশ্যই প্রাথমিক চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে পেট ব্যাথা কমানোর ঔষধ গ্রহণ করবেন।

ছোট্ট একটি উদাহরণ, আমাদের রাসুল (সা.) কে পিঁপড়াতে কামড় দিল তিনি দোয়া পড়ে ফু দিতে লাগলেন এবং আরোগ্য লাভের জন্য ওষুধ প্রয়োগ করলেন। এখন কোরআন এবং হাদিস থেকে পেটে ব্যথার দোয়া জানবো।

পেটে ব্যথার দোয়া

উসমান ইবনে আবুল আস আস-সাকাফি (রা.) পেটে প্রচন্ড ব্যথা, সে সময় রাসুল (সা.) বললেন, ব্যাথার স্থানে ডান হাত রেখে তিনবার বিসমিল্লাহ বলে এ দোয়াটি পড়বা (أعوذُ باللهِ و قُدرتِه من شرِّ ما أَجِدُ و أُحاذِرُ )

উচ্চারণ : আউজু বি-ইজ্জাতিল্লাহি ওয়া কুদরাতিহি মিন শাররি মা আজিদু ওয়া উহাজিরু।

অর্থ : আল্লাহর মর্যাদা ও তার কুদরতের উসিলায় আমি যা অনুভব এবং ভোগ করছি, তা থেকে মুক্তি চাচ্ছি।

এছাড়াও বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ দোয়া রয়েছে আরো পড়ুন সেকশন থেকে দেখুন, পেট ব্যথা সহ বিভিন্ন রোগের আরোগ্য লাভ করতে পারবে ইনশাআল্লাহ।

আরো পড়ুন: সকল রোগ থেকে মুক্তির দোয়া

পেটে ব্যথার জন্য কোরআন থেকে সুরা ৩৭ আস-সাফ্ফাত, আয়াত নং ৪৭ তুলে ধরা হলো এই আয়াতটি নিয়মিত আমল করলে পেটে ব্যথা থেকে আরোগ্য লাভ সম্ভব, ইনশাআল্লাহ।

لَا فِيۡهَا غَوۡلٌ وَّلَا هُمۡ عَنۡهَا يُنۡزَفُوۡنَ‏ ٤٧

উচ্চারণ : লা ফিহা গাওলুওঁ ওয়া লা হুম আনহা ইয়ুংযাফুন। (৩৭)

যে ব্যক্তি পেটে ব্যথায় কাতর অসহ্য যন্ত্রণা সে ব্যক্তি প্রতি ৫ ওয়াক্তে পাঁচবার করে পড়বে।

সুরা আস-সাফ্ফাত এর দুই নাম্বার রুকু শানে নযুল সহ পড়লে আরো বিস্তারিত জানতে পারবেন।

আল্লাহ মুসলিম উম্মাহকে নিয়মিত ছোট্ট এই আমল করার মাধ্যমে পেট ব্যথা থেকে মুক্ত থাকার তাওফিক দান করুন, আমিন।

পেট ব্যাথার ট্যাবলেট এর নাম

দুঃখিত আপনাদেরকে নির্দিষ্ট ভাবে বলে দিতে পারছি না, পেট ব্যাথার ট্যাবলেট এর নাম কেননা আপনারা পেটে ব্যথা সম্পর্কে ইতিমধ্যে জেনে গেছেন।

পেট ব্যাথার ট্যাবলেট এর নাম Napa, Algin, Omeprazole, Vergon, pantonix, fexo ইত্যাদি। ওষুধগুলো ছাড়া আরো পেটে ব্যথার বেশ কিছু ট্যাবলেট বা ওষুধ রয়েছে, আপনারা চিকিৎসকের পরামর্শ ওষুধ গ্রহণ করুন সুস্থ সুন্দর জীবন গড়ুন।

শেষ কথা

যেকোনো রোগে আক্রান্ত হলে সর্বপ্রথম রোগটিকে সনাক্ত বা চিহ্নিত করা জরুরি। এরপর সেই রোগের ঔষধ প্রয়োগ করলেই রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। আপনারা পেটে ব্যথার কারণ ও জটিলতা গুলো জেনে নিজের সতর্ক থাকুন এবং অন্যকে সতর্ক করুন। চিকিৎসকের পরামর্শে পেট ব্যাথা কমানোর ঔষধ ব্যবহার করুন।

যৌন স্বাস্থ্য

ধন্যবাদ-Thanks

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

আর আইটি ফার্মের নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url