চুলে মেথির ব্যবহার

মেয়েদের লাইফ স্টাইল

অধিকাংশ মেয়েদের স্বপ্ন আমার চুল দেখতে অনেক সুন্দর ,লম্বা , স্বাস্থ্যকর ও হেলদি হবে। সেই জন্য চাই আপনার চুলে মেসির ব্যবহার। তাই চুলে মেথির ব্যবহার সহ মেথিতে কি কি রয়েছে সবটাই জানতে এই পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ুন।

image

পেজ সূচিপত্র: চুলে মেথির ব্যবহার

চুলে মেথি ব্যবহারের জন্য প্রস্তুত করুন

চুলের মেসির ব্যবহার আগে প্রস্তুত করে নিতে হবে তাই না চলুন তাহলে খুব সহজেই প্রস্তুত করে নেওয়া যাক।

  • প্রথমে মেথি গুলো ধুয়ে পরিষ্কার করে নিন
  • একটা বাটিতে দুই চামচ মেথি নিয়ে নিন
  • এবার মেথির বাটিতে দুই কাপ পানি দিয়ে দিন অবশ্যই টিউবওয়ের বা ট্যাপের পানি দিবেন
  • এবার মেথির বাটি ২৪ ঘন্টার জন্য রেখে দিন
  • ২৪ ঘন্টা পর দেখবে পানির কালার চেঞ্জ হয়ে গেছে এবার একটি ছাকনির মাধ্যমে মেথি থেকে পানিটি আলাদা করে নিন
  • এখন এই মেথির পানি আপনার চুলে ব্যবহারের জন্য প্রস্তুত

ভেজানো মেথি গুলো চাইলে আপনার চলে ব্যবহার করতে পারেন তবে ব্লেন্ডারের মাধ্যমে সেটি মিকচার করে সাথে অল্প অলিভওয়েল তেল মিশিয়ে চুলে লাগাতে পারেন এটি আপনার চুল বড় সহ বিভিন্ন ভাবে উন্নতি করবে।

মেথিতে কি কি উপাদান রয়েছে তা জানলে আপনি আরো ভালোভাবে বুঝতে পারবেন।

চুলে মেথির ব্যবহার সহ মেথিতে কি কি উপাদান আছে

মেথি বা মেথি বীজে পাওয়া যায় বিভিন্ন উপাদান যা চুলের জন্য পুষ্টি এবং স্বাস্থ্যকর উপকারিতা দেয়। নিম্নলিখিতগুলি মেথিতে বিশেষতঃ রয়েছে:

প্রোটিন: মেথির বীজে প্রোটিনের ভারপ্রায় ২৪-৩০% পরিমাণ ধারণ করে। এটি শরীরের উপকারিতা প্রদান করে, স্বাস্থ্যকর চুল ও নখ পরিচর্যার জন্য উপযোগী।

ভিটামিন: মেথি বীজে ভিটামিন C, ভিটামিন E এবং বিভিন্ন ভিটামিন বার্ধক্য থাকে। এদের মধ্যে ভিটামিন C প্রতিষ্ঠান গঠন এবং প্রতিষ্ঠান সংরক্ষণের ক্ষমতা উন্নত করে। ভিটামিন E ত্বক সুরক্ষা এবং ত্বকের স্বাস্থ্যকর চুল এবং নখের জন্য ভাল হয়।

আরো পড়ুন: হাত এবং পায়ের সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে মেনিকেউ করার নিয়ম

ফোলিক অ্যাসিড: মেথি বীজ ফোলিক অ্যাসিডের একটি ভাল উৎস হিসাবে পরিচিত। ফোলিক অ্যাসিড গর্ভাবস্থায় গর্ভবতী মায়েদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ, কারণ এটি ভ্রমণ নির্জনের উপকারিতা প্রদান করে ও শিশুর মস্তিষ্কের উন্নতির জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

ফাইবার: মেথি বীজে বহুপাদার্থিক ফাইবার থাকে, যা  চুলের জন্য অনেক উপকারী।

আন্ত-জ্বালানি তাত্ত্বিক সম্পদ: মেথি বীজে উপস্থিত অন্তজ্বালানি তাত্ত্বিক পরিবেশনা মধুর মতো এবং কাঠিন্যময় করে। এটি চুলের জন্য ব্যাথা ও শিওরতা উপস্থাপন করতে সাহায্য করে।

আন্তিমিনারালগুলি: মেথি বীজে ক্যালসিয়াম, আয়োডিন, আয়রন এবং ম্যাগনেসিয়ামের মতো আন্তিমিনারাল উপাদানগুলি থাকে। এগুলি স্বাস্থ্যকর হাড়, দাঁত এবং চুলের উন্নতির জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

ফিটোএস্ট্রোজেন: মেথি বীজে ফিটোএস্ট্রোজেন নামক একটি প্রাকৃতিক প্রতিষ্ঠান থাকে। এটি শরীরের অন্তর্ভুক্তির প্রতিরোধ ও পরিবেশনা বৃদ্ধি করে এবং শরীরের হরমোনাল নিয়ন্ত্রণ বজায় রাখে।

আন্তিক্ষীয় তাত্ত্বিক প্রতিষ্ঠান: মেথি বীজে আন্তিক্ষীয় তাত্ত্বিক প্রতিষ্ঠান থাকে, যা শরীরের পরিস্কারতা বজায় রাখতে এবং ত্বকের স্বাস্থ্যকর পদার্থগুলি সংরক্ষণ করে।

আন্তর্ভুক্তিগুলি: মেথি বীজে অনেক আন্তর্ভুক্তি পরিবেশিত থাকে, যেমন লেসিথিন, লিনোলেনিক অ্যাসিড, অ্যালফা-লিনোলেনিক অ্যাসিড, ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিডসহ। এগুলি স্বাস্থ্যের জন্য গুরুত্বপূর্ণ হতে পারে, যেমন হৃদয়ের স্বাস্থ্য ও মস্তিষ্কের উন্নতি।

আরো পড়ুন: কিভাবে বুঝবেন আপনার ডায়াবেটিস হয়েছ

শেষ কথা

ইতিমধ্যেই আপনারা চুলের মেথির ব্যবহার এবং কি কি উপাদান রয়েছে সমস্ত কিছুই আপনারা জেনে গেছে। একটা কিছু করছেন সেটা সম্পর্কে পরিপূর্ণ না জানলে তৃপ্তি আসে না আশা করি এখন থেকে চুলে মেথির ব্যবহার করে আপনার স্বপ্নের বাস্তবায়ন হবে।

ধন্যবাদ-Thanks

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

আর আইটি ফার্মের নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url