লেবুর উপকারিতা ও অপকারিতা

ফল ও পুষ্টিগুণ

লেবু lemon আমাদের কাছে খুবই পরিচিত একটি ফল এর সুস্বাদু রস ও বৈচিত্রপূর্ণ গন্ধ পছন্দের ফল হিসেবে আমাদের কাছে পরিচিত। লেবুতে থাকা উপাদান গুলো লেবুর উপকারিতা ও অপকারিতা যেমন ভিটামিন সি ফিবার পটাশিয়াম ফলেট লেমনেন অন্যান্য পুষ্টি গুলো সম্পর্কে লেবুর উপকারিতা ও অপকারিতা জানব।

image

পেজ সূচিপত্রঃ লেবুর উপকারিতা ও অপকারিতা

লেবুতে কি কি ভিটামিন - পুষ্টিগুলো থাকে

লেবু আমাদের জন্য খুবই উপকারী একটি ফল লেবু থেকে আমরা অনেক রকমের ভিটামিন পেয়ে থাকি যা আমাদের শরীরের জন্য অনেক উপকারী সে জন্য অবশ্যই আমাদের লেবুতে থাকা পুষ্টি গুলো জানা দরকার।

আরো পড়ুন: কমলা খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা

  • ভিটামিন সিঃ লেবুতে ভিটামিন সি এর পরিমাণ প্রতি ১০০ গ্রাম লেবুতে প্রায় ৫৩ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি থাকে যা শরীরের স্বাস্থ্য এবং অন্যান্য অনেক উপকারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।
  • ফোলেটঃ লেবুতে প্রচুর পরিমাণে ফোলেট পাওয়া যায়। এটি গর্ভকালীন মায়ের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে কারণ সন্তানের শারীরিক গঠনে বা বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে ফোলেট ভিটামিনের।
  • পটাশিয়ামঃ লেবুতে প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম পাওয়া যায়। যা আমাদের জন্য অনেকে উপকারী ভিটামিন।
  • ফাইবারঃ লেবু থেকে আমরা ফাইবার নামক ভিটামিন পেয়ে থাকি যা পচনসহ বিভিন্ন ভাবে আমাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে।
  • লেমনেনঃ এটি একটি প্রাকৃতিক কিটন যা লেবুতে পাওয়া যায় লেমনেন ভিটামিন যা পুষ্টি-গত উন্নতি করে এবং রোগ প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে।

লেবুতে এই ভিটামিন গুলো ছাড়াও আরো কিছু ভিটামিন পাওয়া যায়। যেমন ভিটামিন বি৬, ক্যালসিয়াম , আয়রন , ম্যাগনেসিয়াম ইত্যাদি।

আরো পড়ুন: পেঁপে খাওয়ার উপকারিতা

এছাড়াও লেবু এবং লেবুর গাছ পাতা থেকে আমরা যে একটা ঘ্রাণ পাই এই ঘ্রাণ আমাদের অনেকেরই পছন্দের এটা মানসিকভাবে আমাদেরকে একরকম তৃপ্তি দেয়।

লেবু খাওয়ার উপকারিতা - লেবুর উপকারিতা

আমরা ইতিমধ্যেই লেবুতে থাকা ভিটামিন সম্পর্কে জেনেছি। আমরা লেবু থেকে অনেক ভাবে উপকৃত হয়ে থাকি যেমন ক্যান্সার, ওজন নিয়ন্ত্রণ, ডায়াবেটিস, পচন, পেটে সমস্যা ইত্যাদি। চলুন কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ লেবুর উপকারিতা সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

পুষ্টিকরঃ লেবু পুষ্টিকর খাবার হিসেবে পরিচিত কেননা লেবু থেকে আমরা প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন পেয়ে থাকি প্রোটিন , ক্যালসিয়াম , আয়রন , ফাইবার , ইত্যাদি আমরা নিশ্চিত যে লেবু থেকে যেই ভিটামিন পেয়ে থাকি তা আমাদের জন্য অনেক গুরুত্ব রয়েছে।

স্কিন কেয়ারঃ লেবুর রস ব্যবহার স্কিন কেয়ার উপযুক্ত হতে পারে। এটি ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে এবং ময়লা দূর করে স্কিনকে ফ্রেশ ও অনেক সৌন্দর্য বাড়িয়ে তোলে।

ক্যান্সার প্রতিরোধঃ ক্যান্সার আমাদের জন্য খুবই মারাত্মক ভয়াবহ রোগ আমাদের খাদ্য তালিকা লেবু রাখলে ক্যান্সারের মতো মারাত্মক রোগের লেবুর অনেক গুরুত্ব রয়েছে। যা ক্যান্সারের ঝুঁকিতে বিভিন্ন উপাদান গুলি কাজ করে।

আরো পড়ুন: আপেল সিডার ভিনেগার কোনটা ভাল

এছাড়াও আরো অনেক লেবু খাওয়ার উপকারিতা রয়েছে ক্ষতস্থান ভালো করতে ডায়াবেটিস, পচন, ইত্যাদি। আপনারা লেবু রস পানিতে মিশিয়ে কিংবা ভাতের সাথে অথবা বিভিন্নভাবে খাবার মাধ্যমে লেবু থেকে অনেক উপকারিতা পাবেন।

লেবুর অপকারিতা

আমরা প্রত্যেকেই জানি প্রায় জিনিসেরই যেমন ভালো দিক আছে ঠিক তেমন খারাপ দিকও আছে তবে কোনটার কম কোনোটাই বেশি। লেবু lebu থেকে আমরা লেবুর অপকারিতা চাইতে লেবুর উপকারিতা বেশি পেয়ে থাকি কয়েকটি লেবুর অপকারিতা নিচে দেওয়া হলঃ

গ্যাস এবং পেটের সমস্যাঃ আমাদের প্রায় অনেকেরই গ্যাস আছে এই গ্যাসের জন্য আমাদের অনেক ভোগান্তি তবে কিছু মানুষের জন্য লেবুতে থাকা এসিড পেটের সমস্যা করে।

এলার্জিঃ কিছু মানুষের লেবুতে এলার্জি রয়েছে তাদের লেবু খেলেই ত্বকে দাগ সর্দি এসব সমস্যার সম্মুখীন হয় তবে লেবুতে এলার্জি সংখ্যায় খুবই কম।

অতিরিক্ত এসিডিটিঃ কিছু ব্যক্তিতে অতিরিক্ত লেবুর রস সেবনের ফলে এসিডিটি বা এসিড রিফ্লাক্স (acid reflux) এর সমস্যা হতে পারে।

দাঁতের সমস্যাঃ লেবুতে থাকা এসিড দাঁতে একটি খারাপ প্রভাব ফেলে। তবে ব্রাশ করে নিলেই ওকে।

লেবুতে কোন এসিড থাকে

আমাদের অনেকেরই প্রশ্ন লেবুতে কোন এসিড থাকে? লেবুতে ত্রিক্যার্বনিক এসিড (সিট্রিক এসিড) থাকে। এই এসিড শুধু ফল থেকে পাওয়া যায় যেমন লেবুর রস কমলার রস আঙ্গুরের রস ইত্যাদি।

লেবুতে কোন এসিড থাকে তা আপনারা জানতে পারবেন তবে এই এসিড খাদ্য সংরক্ষণে ব্যবহার করা হয় এবং খাবারের স্বাদবৃদ্ধি করতেও ব্যবহার করা হয়।

অনেকের এলার্জি বা অন্যান্য সমস্যা থাকতে পারে তাদের জন্য লেবুতে থাকা ত্রিক্যার্বনিক এসিডে যদি সমস্যা হয় তাহলে ডাক্তারি পরামর্শ নেওয়া দরকার।

লেবুর খোসার উপকারিতা

লেবুর খোসার উপকারিতা এজন্য বেশি, কারণ লেবুর খোসায় অনেক-গুলো ভিটামিন পাওয়া যায় এর মধ্যে  ভিটামিন সি শক্তিশালী এন্টিঅক্সিডেন্ট হিসাবে পরিচিত। এই ভিটামিন মহামারীর মত শক্তিশালী রোগ প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে।

আরো পড়ুন: কলার উপকারিতা ও অপকারিতা

আরো একটি গুরুত্বপূর্ণ লেবুর খোসার উপকারিতা রয়েছে। সেটি হল আমাদের ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। এবার আপনাদের মনে প্রশ্ন ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতে লেবু ব্যবহার কিভাবে করব?

একটি লেবুর রস কাপের চেপে নিন এবং এক চামচ মধু মিশিয়ে মিক্সচার করে নেই এরপর ত্বকে লাগান ১০-১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন এভাবে লেবু থেকে ত্বকের সৌন্দর্য করতে পারেন।

শেষ কথা

লেবু খাওয়ার উপকারিতা - লেবুর উপকারিতা ও অপকারিতা এবং পুষ্টিগুণ এসব নিয়ে আমাদের সাধারণ একটি ধারণা তৈরি হয়েছে। এই সাধারণ জ্ঞান থেকে আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন আমাদের জন্য লেবুতে কি পরিমাণ ভিটামিন রয়েছে। লেবুতে থাকা প্রত্যেকটা ভিটামিন আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে তাই লেবুর এই পুষ্টিগুলো অবহেলা করবেন না।

ধন্যবাদ-Thanks

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

আর আইটি ফার্মের নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url